ভূত-পেত্নীপরিচিতি

[লোকগাঁথা, লোকজবিশ্বাসঅনুযায়ী]

ভূত-পেত্নীপরিচিতি

ভূতহলোঅশরীরিপুরুষআত্মা, আরপেত্নীঅশরীরিমেয়েআত্মা।অপঘাত, আত্মহত্যাপ্রভৃতিকারণেমৃত্যুরপরমানুষেরঅতৃপ্তআত্মাভূত-পেত্নীহয়েপৃথিবীতেবিচরণকরতেপারে।

 

শাকচুন্নি: এটিএকটিপেত্নী।অল্পবয়সী, বিবাহিতমেয়েঅপঘাতেমারাগেলেশাকচুন্নিতেপরিণতহতেপারে।শুভ্রকাপড়পরিহিতশাকচুন্নিমূলতজলাভূমিরধারেগাছেবাসকরেএবংসুন্দরতরুণদেখলেতাকেআকৃষ্টকরেফাঁদেফেলে।কখনোকখনোসেতরুণকেজলাভূমিথেকেমাছধরেদিতেবলে।কিন্তুসাবধান, শাকচুন্নিকেমাছদেয়ামানেনিজেরআত্মাতারহাতেসমর্পণকরা!

 

চোরাচুন্নি: দুষ্টভূত, কোনোচোরমারাগেলেচোরাচুন্নিহতেপারে।পূর্ণিমারাতেএরাবেরহয়এবংমানুষেরবাড়িতেঢুকেপড়েঅনিষ্টসাধনকরে।বাড়িতেএদেরঅনুপ্রবেশঠেকানোরজন্যগঙ্গাজলেরব্যবস্থাআছে।

 

মেছোভূত: মাছলোভীভূত।বাজারথেকেকেউমাছকিনেগাঁয়েররাস্তাদিয়েফিরলেএটিতারপিছুনেয়এবংনির্জনবাঁশঝাঁড়েবাবিলেরধারেভয়দেখিয়েআক্রমণকরেমাছছিনিয়েনেয়।

 

পেঁচাপেঁচি: দেখতেপেঁচারমতএবংজোড়াভূত—একটিছেলে, অন্যটিমেয়ে।গভীরজঙ্গলেমানুষপ্রবেশকরলেএরাপিছুনেয়এবংসুযোগবুঝেতাকেমেরেফেলে।

 

মামদোভূত: হিন্দুবিশ্বাসমতে, এটিমুসলমানআত্মা।

 

ব্রহ্মদৈত্য: ব্রাহ্মণেরআত্মা, সাদাধুতিপরিহিতঅবস্থায়দেখাযায়।এরাসাধারণতপবিত্রভূতহিসেবেবিবেচিত।বলাহয়েথাকে, কোনোব্রাহ্মণঅপঘাতেমারাগেলেসেব্রহ্মদৈত্যহয়।এছাড়াপৈতাবিহীনঅবস্থায়কোনোব্রাহ্মণমারাগেলেওব্রহ্মদৈত্যহতেপারে।এরাকারোপ্রতিখুশিহয়েআশির্বাদকরলেতারঅভীষ্টলক্ষ্যঅর্জিতহয়, কিন্তুকারোপ্রতিনাখোশহলেতারসমূহবিপদ।দেবদারুগাছকিংবাবাড়িরখোলাচত্বরেবাসকরে।

 

স্কন্ধকাটাবাকন্ধকাটা: মাথাবিহীনভূত।অত্যন্তভয়ংকরএইভূতমানুষেরউপস্থিতিটেরপেলেতাকেমেরেফেলে।কোনোদুর্ঘটনায়, যেমনরেলেকারোমাথাকাটাগেলে, সেস্কন্ধকাটাহতেপারে।ভয়ংকরহলেও, মাথানাথাকারকারণেস্কন্ধকাটাকেসহজেইবিভ্রান্তকরাযায়।

 

আলেয়া: জলাভূমিরগ্যাসীয়ভূত।এরাজেলেদেরকেবিভ্রান্তকরে, জালচুরিকরেতাদেরডুবিয়েমারে।কখনোকখনোঅবশ্যএরাজেলেদেরকেসমূহবিপদেরব্যাপারেসতর্ককরেথাকে।

 

নিশি: খুবভয়ংকরভূত।অন্যান্যভূতসাধারণতনির্জনএলাকায়মানুষকেএকাপেলেআক্রমণকরে, কিন্তুনিশিগভীররাতেমানুষেরনামধরেডাকে।নিশিরডাকেসারাদিয়েমানুষসম্মোহিতহয়েঘরেরদরজাখুলেবেরিয়েপড়ে, আরকখনোফিরেনা।কিছুকিছুতান্ত্রিকঅন্যেরবিরুদ্ধেপ্রতিশোধনেয়ারজন্যনিশিপুষেথাকে।

 

কানাখোলা: গভীরনির্জনচরাচরেমানুষকেপেলেতারগন্তব্যভুলিয়েদিয়েঘোরেরমধ্যেফেলেদেয়এইভূত।মানুষটিতখনপথহারিয়েবারবারএকইজায়গায়ফিরেআসে, এবংএকসময়ক্লান্তহয়েমারাযেতেপারে।

 

কাঁদরা-মা: অনেকটানিশিরমতএইভূতগ্রামেরপাশেজঙ্গলেবসেকরুণসুরেবিলাপকরতেথাকে।কান্নারসুরশুনেকেউসাহায্যকরতেএগিয়েগেলেতাকেইনিয়েবিনিয়েগল্পবানিয়েজঙ্গলেরআরোগভীরেনিয়েমেরেফেলে।ছোটবাচ্চারাএরকান্নায়বেশিআকৃষ্টহয়।

 

ভূতকোথায়থাকে: শেওড়া, তাল, দেবদারু, বেল, অশ্বত্থপ্রভৃতিগাছেএকটিদুটিভূতেরদেখাপেতেপারেন।কিন্তুবেশিসংখ্যায়ভূতদর্শনেরঅভিলাষথাকলে, আপনাকেযেতেহবেবিজনবনে, তেপান্তরে, কিংবাভূষণ্ডিরমাঠে।

 

ভূতেরগল্পবলারউপযুক্তসময়: কেউঅনুরোধকরলেইসাথেসাথেভূতেরগল্পবলতেবসেযাবেননাযেন।সবকিছুরইএকটাতরিকাআছে।ভূতেরগল্পবলতেহয়মজলিসে, আরগল্পেরউপযুক্তসময়হচ্ছেরাতেরবেলা, বিশেষকরেবাদলধারাররাতে।ঝমঝমবৃষ্টিরফোঁটাপড়বেটিনেরচালেবাছাদে, জানালাথাকবেহাটকরেখোলা, হালকাবৃষ্টিরছাঁটআসবেঘরে।তীব্রকোনোআলোরাখাচলবেনা, কেবলএকটুদূরেহারিকেন, কুপিবামোমেরমৃদুআলোমিটমিটকরেজ্বলতেপারে।

 

ভূতেরগল্পেরবর্ণনামাধ্যম: ভূতেরগল্পউত্তমপুরুষে, অর্থাৎনিজেরজবানিতেবলাইভালো, তাতেগল্পেঅনুভূতিরব্যঞ্জনাতীব্রহয়এবংগাছমছমভাবটাপ্রকটকরাযায়।ভূতেরগল্পেস্বভাবতইকাউকেনাকাউকেভূতেরপাল্লায়পড়তেহবে, সেটিবর্ণনাকারীনিজেইহতেপারেন।

 

ভূতেরগল্পএকটানেবলতেনেই, কিছুটাভয়েরজায়গায়এসেগল্পথামিয়েদিয়েসময়ক্ষেপণকরতেহবে, যাতেঅন্যরাঅনুরোধকরেগল্পচালিয়েযেতে।যেমনবলাযায়, “বিজনজঙ্গলেঘুরতেঘুরতেহঠাৎএকজায়গায়দেখলামকী..! আচ্ছা, আজথাক, ঘুমপাচ্ছে, বাকিটাআরেকদিনবলব।”

 

কিন্তুগল্পেরযেঅংশগুলিবেশিভয়ের, বিশেষকরেচূড়ান্তঅংশ, সেখানেনাথেমেখুবদ্রুত, জোরেজোরেহঠাৎবলেফেলতেহবে।যেমন: “…একথাশুনেলোকটাবলল, আচ্ছা, দেখেনতোএরকমকিনা [নরমস্বরেবলতেহবে] ঘুরতেইদেখি, লোকটারপায়েরকাপড়একটুউপরে, পায়েরপাতাউল্টানো [একটুজোরে], পায়েরআঙ্গুলেকোনোফাঁকনেই [আরোজোরে], একদমহাঁসেরপায়েরমতদেখতে [আরোজোরেবলতেহবেএবংএইদেখো, বলেহঠাৎগল্পকারনিজেরপাদেখিয়েদেবেন]।

 

ভূত-পেত্নীওরাজাকার: ভূত-পেত্নীরসাথেরাজাকারেরকোনোতুলনাহয়না।এদেরজন্মভূমিরপ্রতিপ্রবলটানথাকে।একদেশেরসাথেঅন্যদেশেরঝগড়াবেঁধেগেলেভূতরাওনিজনিজদেশেরঅধিকারেরজন্যঅন্যদেশেরভূতেরবিরুদ্ধেলড়াইকরে।ভূতরামাতৃভূমিরপ্রতিবিশ্বাসঘাতকহয়না।

 

প্রেম-ভালবাসায়ভূত-পেত্নী: ভূত-পেত্নীরশারীরিকসৌন্দর্যেরব্যাপারেনানামতচালুথাকলেও, প্রেম-ভালবাসায়তাদেরনিষ্ঠাওবিশ্বস্ততাবেশসুবিদিত।তাইযুগযুগধরেমানবপ্রেমিকপ্রেমিকাগভীরভালোবাসারনিদর্শনহিসেবেপরস্পরকেপেত্নী, ভূতনামেআখ্যায়িতকরেথাকে।

 

ভূত-পেত্নীদশারঅবসান:

[ভূত-পেত্নীঅতৃপ্তআত্মা, পৃথিবীরমায়ায়ইত:স্ততছুটেবেড়ায়।তাদেরজীবনক্লান্তিকরভারবহউদ্দেশ্যহীন, তাইকেউভূত-পেত্নীরআত্মামুক্তকরলেতারাখুশিহয়।আত্মামুক্তকরারএকটিকার্যকরউপায়হলোগয়ায়গিয়েভূতেরনামেপিণ্ডিদেয়া।

 

 

 

লেখাটিরবিষয়বস্তু(ট্যাগ/কি-ওয়ার্ড): সাহিত্য, লোককথা, অতিপ্রাকৃত ;

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s