বিয়া করমু, মেয়ে খুজি, ঘটকালী, কোন জেলা? ;

সবাই তো চায়, নিজ জেলার মেয়েকে বিয়ে করতে। অনেক পরিবারের মা-বাবারও ইচ্ছে থাকে, নিজ জেলাতেই মেয়েকে বিয়ে দিতে। এটার অবশ্য একটা কারণও আছে, বিয়ে পরবর্তী আচার,সমাচার, দেওয়া নেওয়া, সামাজিকতা এইসব লোকজ সংষ্কৃতি আঞ্চলিকতার উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল। ভিন্ন আঞ্চলিকতার আচার ব্যাবহারের জন্য বিবাহ পরবর্তী সময়ে অভিভাবকদের মাঝে অনেক মনোমালিন্য ও দেখা যায় মাঝে মাঝে, তবে এটা খুব প্রকট নয়।

 

তারপরও এই ট্রেন্ডে ইদানিং পরিবর্তন আসা শুরু হয়েছে। এর বড় অংশই দেখা যাচ্ছে ঢাকাতেই।ঢাকা শহরে বসাবাসকারীদের একটা বড় অংশই ঢাকার বাইরে থেকে আসা। হয়ত ছেলে-মেয়ের জন্ম ঢাকাতেই, কিন্তু রুটস (বাপের বাড়ী, দাদার বাড়ী) ঢাকার বাইরে। ভিন্ন ভিন্ন রুটসের পরিবারের মধ্যেও এখন বিয়েটা তেমন বড় কোনো বাঁধা নয়। অনেক অভিভাবক এটাকে উদার ভাবেই মেনে নিচ্ছেন।

 

তারপরও যদি হয়, এরেন্জেড ম্যারেজ, তবে অভিভাবকরা চাচ্ছে নিজ জেলা, পাশ্ববর্তী জেলা, কিংবা নিদেন পক্ষে একই বিভাগের মেয়ের সাথে ছেলেকে বিয়ে দিতে।

 

আমার চেনা জানা বিভিন্ন বন্ধুদের সাথে বিভিন্ন সময়ের আড্ডাতে লোকেশান ভিত্তিক প্রচুর বিভিন্নতা খেয়াল করেছি। তার কয়েকটা এই রকম।

 

 

 

 

১। যশোর-খুলনার মেয়েরা অনেক সুন্দরী। যশোরের মেয়েরা কুটনামিতে খুব ওস্তাদ হয়, প্রচুর মিথ্যা কথা বলে। আর শ্বশুরবাড়ীর লোকজন সহ্যই করতে পারেনা। পরকিয়াতেও ওস্তাদ যশোরের মেয়েরা। (আংশিক ব্লগারের মতামত।)

 

২।চট্টগ্রামের মেয়েরা বাইরের জেলাদের ছেলেদের ব্যাপারে আগ্রহী নয়। কিছুটা কনজারভেটিভ।

 

৩।সিলেটী মেয়েরা পর্দানশীল বেশী। সিলেটি মেয়েরা সাধারণত বাইরের জেলা তে বিয়ে করতে যায় না। আত্মীয়দের মধ্যে থাকতে পছন্দ করে। সিলেটী মেয়েরা ছ্যাচড়া। (আংশিক ব্লগারের মতামত।)

 

৪।পুরার ঢাকার মেয়েরা খুবই দিলখোশ। ঢাকার অন্য এলাকার মেয়েরা জগাখিচুরি

 

৫।খুলনার মেয়েরা স্বামী অন্ত প্রাণ। খুলনার মেয়েরা নাকি ফ্যামিলির ব্যাপারে একটু সিরিয়াস টাইপের হয় ৷(আংশিক ব্লগারের মতামত।)

 

৬।উত্তর বঙের মেয়েরা কোমলমতী হয় এবং বেকুব ও আনক্রিয়েটিভ ।(আংশিক ব্লগারের মতামত।)

 

৭।বরিশালের মেয়েরা একটু ঝগড়াটে, ভালো রাঁধুনী, ন্যাচালার সুন্দরী , সংসারী এবং স্বামীভক্ত। কিন্তু বরিশাল থেকে সাবধান, যতই সুন্দর হোক, জীবন বরবাদ করে দেবে। (ব্লগারদের মতামত।)

 

৮।ময়মনসিংহের মেয়েরা একটু বোকাসোকা, কেউবা বদমাইশ।কেউ কেউ স্মার্ট এবং ডেয়ারিং (আংশিক ব্লগারের মতামত।)

 

৯। সিরাজগন্জের মেয়েরা ভালো, যদি শান্তিতে ঘর করতে চান। (ব্লগারদের মতামত।)

 

১০। বগুড়ার মেয়েরা ঝাল। (ব্লগারদের মতামত।)

 

১১। কুষ্টিয়ার মেয়েরা অহংকারী, কিন্তু সেই তুলনায় গুনবতী নয়। মননশীল, রুচিসম্পন্ন। যাকে ভালবাসে সত্যিকারের ভালবাসে, কোন রাখঢাক নাই।

 

১২।বি বাড়িয়ার মেয়েরা বেশী কথা বলে কিন্তু পতিভক্ত ও সংসারী (ব্লগারদের মতামত।)

 

১৩। রাজশাহীর মেয়েরা একটু লুজ । (ব্লগারদের মতামত।)

 

১৪।পাবনার মেয়েরা কুটনা হয়ে থাকে।(ব্লগারদের মতামত।)

 

১৫। জামালপুরের মেয়েরা বেশি স্মার্ট এবং ডেয়ারিং।এই জেলায় সুন্দরীদের ঘনত্ব বেশি।(ব্লগারদের মতামত।)

 

১৬।নোয়াখালী: বাবা-মা অথবা আত্মীয়-স্বজনদেরকে ভুলতে চাইলে নোয়াখালীর মেয়েদের তুলনা নেই । বেশির ভাগ মেয়ে কারো কথার নিছে থাকতে চায়না । এরা চরম কুটনা হয়। তবে তারা শশুড়বাড়ির জন্য করতে চাইলে নিজের সব দিয়ে করে, না করলে নাই!(ব্লগারদের মতামত।)

 

১৭। ফরিদপুরের মেয়েরা চোরা স্বভাবের।ওদের মত কুটিল প্যাচের মানুষ খুব কমই হয়।(ব্লগারদের মতামত।)

 

১৮।কুমিল্লার মেয়েরা শ্বশুরবাড়ির মানুষদের পছন্দ করেনা।কুমিল্লার মেয়েরা সুন্দরী, অনেক দায়িত্বশীল, তবে সংসারে প্রভাব বিস্তার করতে বেশি পছন্দ করে।(ব্লগারদের মতামত।)

 

১৯।টাংগাইলের মেয়েরা খুব ভাল হয়, বান্ধুবী হিসেবেতো বটেই, পাত্রী হিসেবেও। .এ অঞ্চলের মাইয়াগুলো দুনিয়ার বজ্জাত… তবে বান্ধবী হিসাবে ভালু..একটু দিলখোলা টাইপের (ব্লগারদের মতামত।)

 

২০।মাদারিপুরের মেয়েরা খুবই কিউট, খুব খরচে, জামাইয়ের পকেট ফাকা করতে উস্তাদ।(ব্লগারদের মতামত।)

 

২১।চাঁদপুরের মেয়েরা মানুষ হিসেবে খুবই ভালো, অথিতিপরায়াণ।তাদের সরল ভালবাসায় আপনি মুগ্ধ হবেন। আর শ্বশুরবাড়ী চাঁদপুর হলে ইলিশ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না । আর আসল কথা হলো চাঁদপুরে লোকের মাথায় প্যাচ জিলাপীর থেকেও বেশী। চাদপুরের মেয়েরা ছেলে ঘুরাতে ওস্তাদ। (ব্লগারদের মতামত।)

 

 

২২।দিনাজপুরের মেয়েরা যে খুব সুন্দরী হয়।(ব্লগারদের মতামত।)

 

২৩।চাপাই নবাবগঞ্জের মানুষ সরল মনের অধিকারী। (ব্লগারদের মতামত।)

 

২৪।গাজীপুরের মেয়েরা খুব ই ভাল, মিশুক এবং রসিক ।এখাঙ্কার মেয়েরা জেদী, লাজুক ,মিডিয়াম সুন্দর, মিডিয়াম স্মার্ট এবং সংস্কৃতি মনা।(ব্লগারদের মতামত।)

 

২৫। নরসিংদীর মেয়েরা উড়াল পঙ্খীর মতো তাদের মন আর চলার ঢং । (ব্লগারদের মতামত।)

 

২৬।কিশোরগঞ্জের মেয়েরা একটু বোকাসোকা আর ডেয়ারিং প্রকৃতির। মিশুক, বন্ধুপাগল বা বন্ধুপ্রেমী হয়। স্বামী ভক্ত হয় তবে এমনও হতে পারে যে সারাজীবন বউয়ের দ্বারা নিগৃহীত হওয়া; অসম্ভব কিছু না। (ব্লগারদের মতামত।)

 

 

 

 

—– আরো অনেক আছে, ভয়ে আছি, কে কোন দিক থেকে লোকেশন নিয়ে আমাকে বাঁশ দেয় জানি না। তাই আর উল্লেখ করছি না। এইগুলো জাস্ট বিভিন্ন সময় আড্ডা থেকে পাওয়া, নানা জনের মতামত।

 

ব্লগারগণ যদি কোনোটা উল্লেখ করেন, যোগ করে দিবো।

 

 

স্বীকারোক্তি: জেলাভিত্তিক এই মন্তব্যগুলো বন্ধু/ব্লগারদের থেকে পাওয়া। কাউকে/ কোনো জেলাকে হেয় করার জন্য নয়।কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে ক্ষমাপ্রার্থী।

 

 

 

লেখাটির বিষয়বস্তু(ট্যাগ/কি-ওয়ার্ড): বিয়া করমু, মেয়ে খুজি, ঘটকালী, কোন জেলা? ;

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s